সিটিতেই যাচ্ছেন মেসি

বার্সেলোনা ক্লাবের সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছেনা। এক দিকে ক্লাবের ফর্মহীনতা, অপরদিকে দলের সবচেয়ে বড় তারকার ক্লাবে অন্ধকার ভবিশ্যত। সবমিলিয়ে বিধ্বস্ত সময় পাড় করছে বার্সেলোনা। মেসি জানিয়ে দিয়েছেন ‘ইট ইজ এনাফ’। চিঠি দিয়ে বলে দিয়েছেন, ‘আর থাকছি না’। এখন মেসি ছাড়ছে কি না সেটা পরের প্রশ্ন। বর্তমানে যেই প্রশ্নটি বেশি ঘুরপাক খাচ্ছে তা হলো, মেসি ক্লাব ছাড়লে কোথায় যাবেন? কোন সেই সৌভাগ্যবান ক্লাব, যারা মেসিকে দলে আনতে পারবে?

চ্যাম্পিয়নস লিগ কোয়ার্টার ফাইনালে হারের পর থেকেই গুঞ্জনটা উঠেছিল। বার্সেলোনা ছাড়তে চান লিওনেল মেসি। শুরুটা করে আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টস। গতকাল সবার আগে তারা জানিয়েছে, বুরোফ্যাক্সের (প্রত্যায়িত পত্র) মাধ্যমে বার্সাকে মেসি জানিয়েছেন তিনি ক্লাব ছাড়তে চান। ক্লাবকে নিজের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়ার পর মেসির পছন্দ ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ (ইপিএল) ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটি।

গত ১৬ আগস্ট মেসির বার্সা ত্যাগের খবর প্রথম প্রকাশ করা ব্রাজিলিয়াল সাংবাদিক মার্সেলো বিসলার এক টুইটে এমনটাই জানিয়েছেন। মেসি ক্যারিয়ারের স্বর্ণালি সময় যে কোচের অধীনে কাটিয়েছেন, সে পেপ গার্দিওলা এখন সিটির কোচ। যদিও গার্দিওলা নিজেই সিটির দায়িত্ব নেওয়ার পর বারবার বলে দিয়েছেন, মেসিকে সিটির আকাশি জার্সিতে দেখার সুযোগ নেই, মেসির বার্সাতেই ক্যারিয়ার শেষ করা উচিত। কিন্তু এখন যে অবস্থা, তাতে মেসিকে পাওয়ার দৌড়ে যদি কেউ সবচেয়ে এগিয়ে থাকে, সেটা সিটিই। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম রেডিও কাতালুনিয়ার সাংবাদিক হাভি কাম্পোস এর মধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে, সিটিতে যাওয়ার ব্যাপারে পেপ গার্দিওলার সঙ্গে বেশ ক’বার ফোনালাপ করে ফেলেছেন লিওনেল মেসি।

মার্সেলো বেকলারও বলেছেন, মেসি যেতে পারেন সিটিতে। বার্সেলোনার হাঁড়ির খবর বের করে আনার জন্য গত কয়েক বছর ধরে এই বেকলার বেশ বিশ্বস্ততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনিই ২০১৭ সালে নেইমারের বার্সেলোনা থেকে বার্সেলোনা ছাড়ার খবরটি দিয়েছিলেন। তবে সিটিতে যাওয়ার ব্যাপারে এবং গার্দিওলার অধীনে আবারও খেলার ব্যাপারে মেসি যে এই প্রথম আগ্রহ দেখালেন, তা কিন্তু নয়। এর আগেও ২০১৬-১৭ মৌসুমের শুরুর দিকে গার্দিওলাকে ফোন করে মেসি জানিয়েছিলেন, প্রিয় কোচের অধীনে আরও একবার খেলতে চান মেসি। সিটি যেন মেসিকে আনার জন্য আর্থিক দিকগুলো বিবেচনা করে। যদিও সে পরিকল্পনা ফোনালাপেই সীমাবদ্ধ ছিল। শুধু গার্দিওলাই নন, সিটিতে বিভিন্ন ভূমিকায় বার্সেলোনার সাবেক অনেক কর্তাব্যক্তি আছেন, যা মেসিকে সিটিতে যাওয়ার ব্যাপারে উদ্বুদ্ধ করছে।