শিগগিরই অনুশীলনে যোগ দিচ্ছেন ডমিঙ্গো, গিবসনরা

বিশেষ ছাড়পত্রে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হচ্ছে না বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের কোচিং স্টাফদের। ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত অনুশীলনের পঞ্চম ধাপে যেকোনো দিন দেখা যেতে পারে রাসেল ডমিঙ্গো, ওটিস গিবসনসহ করোনা টেস্টে নেগেটিভ আসা কোচিং স্টাফদের।

দুই দফা করোনা টেস্টের ফল নেগেটিভ আসার পর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে কোচিং স্টাফদের কোয়ারেন্টাইন না করার অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। জানা গেছে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে সবুজ সংকেত পেয়েছে বিসিবি। তবুও আনুষ্ঠানিক চিঠির অপেক্ষায় দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

সামনে শ্রীলঙ্কা সফর। ক্রিকেটাররা দীর্ঘদিন ছিলেন কোয়ারেন্টাইনে। ক্রিকেটাররা মাঠে ফিরলেও কোচিং স্টাফদের থেকে অনেক দূরে তারা। এজন্য প্রতিটি দিন কাজে লাগাতে চায় বিসিবি। সামাজিক দূরত্ব মেনে চালু রাখতে চায় অনুশীলন।

এজন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে অনুরোধ করেছে বিসিবি। অবশ্য এর আগে দুই দফা করোনা পরীক্ষা হয়েছে তাদের। কোচ রাসেল ডমিঙ্গো দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে বিমান উঠার আগে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট পান। বাংলাদেশে পা রাখতেই তার করোনা টেস্ট করানো হয়েছিল। সেখানেও ফল নেগেটিভ আসে। বোলিং কোচ ওটিস গিবসন বুধবার পরীক্ষা দিয়েছেন। জানা গেছে, তার ফলও করোনা নেগেটিভ।

হেড অব ফিজিক্যাল পারফরম্যান্স নিকোলাস ট্রেভর লি ছাড়া বাকি সবাই নেগেটিভ। তাকে বাদ রেখে কোচিং স্টাফদের সবাই যোগ দিচ্ছেন অনুশীলনে।

জাতীয় দলের আনুষ্ঠানিক কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরু হবে ২১ সেপ্টেম্বর থেকে। ১৮ সেপ্টেম্বর হবে করোনা টেস্ট। যারা নেগেটিভ হবেন, তারা সোনারগাঁও হোটেলে উঠবেন ২০ সেপ্টেম্বর। ২১ সেপ্টেম্বর তৃতীয় করোনা টেস্ট হবে ক্যাম্পের ক্রিকেটারদের। ২৭ সেপ্টেম্বর বিমানে উঠার দুইদিন আগে আরেক দফা করোনা টেস্ট করা হবে।