শাকিব নয়, শান্ত খানের বিপরীতে দীঘি

বছর দুয়েক ধরে আলোচনা চলছিল, শাকিব খানের নায়িকা হয়ে চলচ্চিত্রে ফিরছেন প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। তবে সেই গুঞ্জনে পানি। শাকিব খান নয়, শান্ত খানের বিপরীতে অভিনয় করছেন দীঘি।

আগামী সপ্তাহে দীঘি শুটিংয়ে ফিরবেন বলে এনটিভি অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন তাঁর বাবা চলচ্চিত্রাভিনেতা সুব্রত বড়ুয়া।

স্টোরি স্পেলস প্রোডাকশনের ব্যানারে এরই মধ্যে চলচ্চিত্রটির শুটিং চলছে এফডিসিতে। ‘টুঙ্গীপাড়ার মিয়া ভাই’ চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করছেন সেলিম খান। সিনেমাটির প্রযোজক তাঁর মেয়ে পিংকি খান।

সুব্রত বড়ুয়া বলেন, ‘ভালো কাজ দিয়ে দীঘির চলচ্চিত্রে ফেরার পরিকল্পনা ছিল। এ ছবির গল্প ও চরিত্র দুটোই মানানসই, তাই সে কাজ করছে। আগামী সপ্তাহ থেকে দীঘি ছবির শুটিংয়ে অংশ নেবে।’

শিশুশিল্পী হিসেবে চলচ্চিত্রে অভিনয় করে ব্যাপকভাবে আলোচিত হয়েছিলেন দীঘি। কাজী হায়াতের ‘কাবুলিওয়ালা’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এরপর ‘চাচ্চু’, ‘দাদীমা’, ‘এক টাকার বউ’ চলচ্চিত্রগুলো তাঁকে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে পৌঁছে দেয়।

প্রার্থনা ফারদিন দীঘির বাবা সুব্রত বড়ুয়া অভিনেতা ও মা দোয়েল অভিনেত্রী। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের আগে গ্রামীণফোনের বিজ্ঞাপনে অভিনয় করে সবার নজরে আসেন দীঘি। এ বিজ্ঞাপনে তাঁর ‘বাবা জানো, আমাদের একটা ময়না পাখি আছে না, সে আজকে আমার নাম ধরে ডেকেছে। আর এ কথাটা না মা কিছুতেই বিশ্বাস করছে না। আমি কি তাহলে ভুল শুনেছি? কেমন লাগে বলো তো!’ সংলাপ মানুষের মুখে মুখে ফিরেছে। কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘কাবুলিওয়ালা’ দীঘি অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র। এরপর ‘চাচ্চু’, ‘দাদীমা’, ‘বাবা আমার বাবা’, ‘রিক্সাওয়ালার ছেলে’, ‘দ্য স্পিড’, ‘অবুঝ শিশু’সহ বেশ কিছু চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন দীঘি।

শান্ত খান সম্প্রতি শেষ করেছেন শামীম আহমেদ রনি নির্মিত চলচ্চিত্র ‘বিক্ষোভ’। এ ছবিতে তিনি অভিনয় করছেন কলকাতার নায়িকা শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে। শ্রাবন্তী-শান্ত ছাড়াও ছবিতে অভিনয় করছেন বলিউড তারকা রাহুল দেব, বাংলাদেশের অমিত হাসান, সাংকু পাঞ্জাসহ অনেকে। এ ছবির মাধ্যমে প্রথমবার বাংলাদেশের ছবিতে পারফর্ম করছেন বলিউড অভিনেত্রী সানি লিওনি। তিনি যে গানে পারফর্ম করছেন, সেটি গেয়েছেন বাংলাদেশের কোনাল।

গত বছরের ৫ ডিসেম্বর ‘প্রেমচোর’ ছবির মধ্য দিয়ে ঢালিউডে যাত্রা শুরু করেন শান্ত খান। তিনি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খানের ছেলে। ছবিতে শান্ত খানের সঙ্গে জুটি বাঁধেন ভারতের নেহা আমানদীপ। এ ছাড়া অভিনয় করেন ভারতের রজতাভ দত্ত, সুপ্রিয় দত্ত, বাংলাদেশের সাদেক বাচ্চু, অরুণা বিশ্বাস, বড়দা মিঠু, ডিজে সোহেল প্রমুখ।