রিয়ার নামে লুকআউট নোটিশ জারি করবেন পুলিশ

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের বান্দ্রার ফ্ল্যাট থেকে গত ৮ জুন বেরিয়ে আসেন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী। তাঁর বেরিয়ে আসার কারণ সম্পর্কে মুখ খুলেছেন মুম্বাই পুলিশ কমিশনার পরমবীর সিং।
সুশান্তের প্রেমিকা ‘নিরুদ্দেশ’, যা বললেন তাঁর আইনজীবি
সুশান্তের মৃত্যু: মেয়েদের কটাক্ষের বিরুদ্ধে সরব নুসরাত
করোনামুক্ত ঐশ্বরিয়া-আরাধ্য
তিনি বলেন, সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর পর আমরা মোট দু’বার রিয়ার বয়ান রেকর্ড করি। কী ভাবে এবং কোথায় সুশান্তের সঙ্গে দেখা হয়েছিল তাঁর, তা আমাদের সবিস্তার জানান রিয়া। সুশান্তের যাবতীয় প্রেসক্রিপশনও শেয়ার করেন তিনি।

পরমবীর সিং আরও জানান, রিয়ার বয়ান অনুযায়ী, তাঁরও মানসিক অবস্থা ভাল ছিল না। দু’জনের সম্পর্কে চলছিল নানা টানাপড়েন।

এদিকে এফআইআর জারি হওয়ার পর থেকেই রিয়াকে খুঁজে পাচ্ছে না বলে দাবি করছে বিহার পুলিশ। বিহার পুলিশের ডিজি গুপ্তেশ্বর পাণ্ডে জানান, এ বার রিয়ার নামে লুকআউট নোটিশ জারির কথা ভাবছেন তাঁরা। যদিও রিয়ার আইনজীবীর দাবি, তাঁর মক্কেল আত্মগোপন করেননি, তিনি নিরুদ্দেশও নন।

মুম্বাই পুলিশ তাঁকে চার বার থানায় ডেকে পাঠায়। প্রতি বারই হাজিরা দিয়েছেন রিয়া। সুশান্তের শেষকৃত্যে রিয়া চক্রবর্তীর অনুপস্থিতি নিয়েও মুখ খুলেছেন সতীশ। সংবাদসংস্থা এএনআইকে তিনি আরও জানান, সুশান্তের শেষকৃত্যে করোনার জন্য উপস্থিতি কমিয়ে যে ২০ জনের তালিকা তৈরি করা হয়েছিল তাতে রিয়ার নাম বাদ দেওয়া হয়েছিল। সে জন্যই মুম্বাই থাকলেও সুশান্তকে শেষ বার দেখতে পারেননি রিয়া।

অন্য দিকে, গতকাল বিহার পুলিশের সদর দফতর থেকে পাটনা সিটি পুলিশের সুপার বিনয় তিওয়ারিকে মুম্বাইয়ে পাঠানো হলে এই আইপিএস অফিসারকে কোয়ারেন্টিনে পাঠিয়েছেন মুম্বাইপুর কর্তৃপক্ষ। আজ সেই ঘটনায় বিহার পুলিশের ডিজি গুপ্তেশ্বর পাণ্ডে সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বলেন, “সুশান্ত মারা যাওয়ার পর এই ৫০ দিনে মহারাষ্ট্র পুলিশ কী করেছে? আমাদেরও তদন্তে সহযোগিতা করছে না। এর থেকেই বোঝা যাচ্ছে, কিছু গণ্ডগোল রয়েছে।’