বাউফলে পানিতে ডুবে একই পরিবারের ৩ বোনের মৃত্যু

পটুয়াখালীর বাউফলে পানিতে ডুবে দুই সহোদরসহ একই পরিবারের তিন বোনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়ছে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার কালাইয়া ইউনিয়নের কর্পূরকাঠী গ্রামের একটি পুকুর থেকে ওই তিন বোনের মৃত দেহ উদ্ধার করা হয়।
মৃত তিন বোন হলো মাহফুজা বেগম (১৫), মরিয়ম বেগম (১৫) ও মারিয়া বেগম (১১)। মাহফুজা ওই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক খানের মেয়ে ও মানছুরিয়া দাখিল মাদ্রাসার ১০ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী। মরিয়ম ও মারিয়া একই গ্রামের মোখলেছুর রহমানের মেয়ে ও কালাইয়া রাব্বানিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ১০ম ও ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী। তারা তিনজন সম্পর্কে আপন চাচাতো বোন।
নিহতদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গতকাল দুপুরে তিনবোন একই সাথে গোসল করতে বাড়ির অদূরের একটি পুকুরে যায়। দুপুর অতিবাহিত হয়ে বিকাল হওয়ার পরও তাদের খোঁজ না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনদের বাড়িতে খোঁজ নিতে থাকে। এক পর্যায়ে পরিবারের লোকজন সন্ধার সময়ে বাড়ির সামনের পুকুরে তিন বোনের ভাসমান লাশ দেখতে পায়।

নিহতের স্বজন মাওলানা মহিউদ্দিন জানান, তারা কেউ সাতাঁর কাটঁতে জানতো না। তিন বোন একই সাথে পুকুরে গোসল করতে যায়। সম্ভবত পা পিছলে গিয়ে কেউ পড়ে গেলে একজন অপরজনকে বাঁচাতে গিয়ে তিন বোনেরই মৃত্যু।

বাউফল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। কোন অভিযোগ না থাকায় লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।