বগুড়ায় সাড়ে আট হাজার ইয়াবাসহ ৫ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

বগুড়ায় সাড়ে আট হাজার পিস ইয়াবা ও একশ’ বোতল ফেনসিডিলসহ ৫ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ। বুধবার রাত ও বৃহস্পতিবার সকালে পৃথক অভিযান চালিয়ে মাদকসহ তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় একটি মাইক্রোবাসও জব্দ করা হয়।
ডিবি পুলিশ জানায়, পুলিশ সুপার মো. আলী আশরাফ ভূঞার দিক নির্দেশনায় ডিবি পুলিশের ওসি আছলাম আলীর নেতৃত্বে একটি টিম বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে শহরের নিশিন্দারা মধ্যপাড়ার জনৈক আব্দুল মান্নানের বাড়ির ভাড়াটিয়া মাদক ব্যবসায়ী রাসেল সরকারকে (২৬) গ্রেপ্তার করে। পরে তার ঘরে তল্লাশি চালালে আলমারিতে ৮ হাজার পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। রাসেল সরকার মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার সাহেবগঞ্জ এলাকার মোবারক হোসেনের ছেলে। ডিবির আরেকটি টিম বুধবার রাতে বগুড়া শহরতলীর চারমাথা এলাকা থেকে ঢাকাগামী একটি মাইক্রোবাস থেকে একশ’ বোতল ফেনসিডিলসহ দু’জনকে গ্রেপ্তার করে। তারা হলেন- জাহাঙ্গীর হোসেন ও মাহবুব আলম কলম। তাদের বাড়ি জয়পুরহাট সদর এলাকায়। ওইদিন রাতে আরেক অভিযানে ডিবি পুলিশ শহরের সেউজগাড়ি আমতলা থেকে ৫০০ পিচ ইয়াবাসহ দুই নারীকে গ্রেপ্তার করে। তারা হলেন- নাসিমা ওরফে কাজলী বেগম (৩৪) ও জলি বেগম (৩৮)। কাজলী বেগম জেলার দুপঁচাচিয়া উপজেলার পলিপাড়া এলাকার ইয়াসিন আলীর মেয়ে ও জলি বেগম বগুড়া শহরের ফুলবাড়ী দক্ষিপাড়ার মৃত রুবেল হোসেনের মেয়ে।

ডিবি পুলিশের ওসি আসলাম আলী জানান, রাসেল সরকার বগুড়ায় বাসা ভাড়া নিয়ে ইয়াবার বড় চালান এনে খুচরা ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করে আসছিলেন। খবর পেয়ে তাকে গ্রেপ্তার ও তার বাসা থেকে আট হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ সুপার মো. আলী আশরাফ ভূঞা বলেন, ‘মাদক পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত আমাদের অভিযান চলবে।’