আবারও ‘ড্রিবলিংয়ের রাজা’ মেসি

লা লিগার শিরোপা হাতছাড়া হয়েছে বার্সার। কিন্তু ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে ঠিকই বাকিদের পেছনে ফেলে দিয়েছেন লিওনেল মেসি।

শুধু কি তাই, ২০১৯/২০ মৌসুমে বেশ কিছু রেকর্ডও ভেঙেছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।
এবারের মৌসুমে ২৫ গোল করে এরইমধ্যে সপ্তমবারের মতো লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার নিশ্চিত করেছেন মেসি। এছাড়া তার পা থেকে ২১টি অ্যাসিস্টও এসেছে, যা নতুন লা লিগা রেকর্ড। কিন্তু যে কীর্তির কথা সেভাবে আলোচিত হচ্ছে না, তা হলো, আবারও স্পেনের ‘ড্রিবলিং কিং’ হয়েছেন বার্সা অধিনায়ক। ডিফেন্ডারদের দেয়াল গলে বল নিয়ে ছুটে যাওয়ায় এবার অপ্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন তিনি।
লা লিগার সদ্য সমাপ্ত মৌসুমে মোট ১৮২টি সফল ড্রিবল করেছেন মেসি। তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা নাবিল ফেকিরের যা প্রায় দ্বিগুণ বেশি। রিয়াল বেতিসের অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার মোট ৯৮টি সফল ড্রিবল সম্পন্ন করেছেন। তালিকায় তৃতীয় স্থানে আছেন আন্দ্রে-ফ্র্যাঙ্ক জাম্বো আনগুইসা (৮৬টি সফল ড্রিবল) এবং ৬৯টি সফল ড্রিবল সম্পন্ন করে চতুর্থ স্থানে আছেন ফ্যাবিয়ান ওরেয়ানা।

গত মৌসুমে সেল্টা ভিগোর সোফিয়ানে বোফালের কাছে ‘ড্রিবলিংয়ের রাজত্ব’ হারিয়েছিলেন মেসি। মরক্কান মিডফিল্ডারের (১৪৪) চেয়ে গতবার ১০ ড্রিবল কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন তিনি।

গত ১০ বছরে, ছয়বার লা লিগার সেরা ড্রিবলারের তকমা তকমা জিতেছেন মেসি। এবারের মৌসুমের ১৮২টি সফল ড্রিবল ২০০৮/০৯ মৌসুমের পর এই ফরোয়ার্ডের সেরা। এর আগে ২০১০/১১ মৌসুমে ১৮৬টি সফল ড্রিবল তার ক্যারিয়ার সেরা।

পুরো ইউরোপে গত ১২ বছরে মেসির চেয়ে ড্রিবলিংয়ে বেশি সাফল্য পাননি আর কোনো খেলোয়াড়। দল হিসেবে বার্সা তারকার ড্রিবলের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দলের নাম অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। এবারের মৌসুমে দিয়েগো সিমিওনের দলের বিপক্ষে ১৬টি সফল ড্রিবল সম্পন্ন করেছেন মেসি। ২০০৮/০৯ মৌসুম থেকে এখন পর্যন্ত অ্যাতলেটিকোর বিপক্ষে মোট ১৩০টি সফল ড্রিবল সম্পন্ন করেছেন তিনি, যা অন্য যেকোনো ক্লাবের চেয়ে বেশি।

অ্যাতলেটিকোর পর সফল ড্রিবলের ক্ষেত্রে মেসির সবচেয়ে প্রিয় প্রতিপক্ষ যথাক্রমে- ভ্যালেন্সিয়া (১১৩টি সফল ড্রিবল), এসপানিওল (১১১) এবং রিয়াল মাদ্রিদ (১০০)।